শনিবার, মে ৮

ঢাকা বিমানবন্দরে সাধারণ মানুষ এর ভোগান্তির শেষ কোথায়?

  • ঢাকা বিমান বন্দরের ইমিগ্রেশন অফিসারের ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা লোভের জন্য শত শত প্রবাসির জীবন ন’ষ্ট হয়ে যাচ্ছে৷ এ রকম এক ইমিগ্রেশন অফিসারের লোভের কারণে ন’ষ্ট হয়ে গেল আরও এক প্রবাসীর জীবন৷

    এই দুবাই প্রবাসীর সাথে ঘটে যাওয়া সম্পূর্ণ ঘ’টনার বর্ণনা দিয়েছে “স্কাই জোন ট্রাভেল এন্ড ট্যুরিজম এল.এল.সি” নামক একটি ফেসবুক পেজের স্ট্যাটাসের মাধ্যমে৷পাঠকদের জন্য তা হুবহু তুলে ধরা হলো:

  •  

    ঢাকা বিমান বন্দরের মানুষরুপি ইমিগ্রেশন অফিসার প্রথমে বললো এই আবেদনটি অনলাইনে নেই,পরে শফিকুল হক দুবাই কনস্যুলেটের মান্যবর কনসাল জেনারেল মোহাম্ম’দ ইকবাল হোসেন খান সাহেবকে ফোন করে বললেন বিস্তারিত,

    কনসাল জেনারেল সাহেব বি’ষয়টি শুনে সাথে সাথে কনস্যুলেট অফিসে একজন জুনিয়র কর্মকর্তাকে দিয়ে আবেদনটি অনলাইন করে দেন,যদিও আজ শুক্রবার অফিস বন্ধ,পরে বিমান বন্দরের ঐ অমানুষটি বলে লেটার অনলাইনে আছে সমস্যা নাই কিন্তু তোমার ভিজিট ভিসায় সমস্যা আছে,

    এটা অনলাইনে শো করছেনা,অথচ দুবাইতে ভিসা চেকিং করা হয়েছে, দেখা যায় ভিসা এক্টিভ,আসল কথা হল এই মানুষ রুপি জানোয়ারের বাচ্চারা কন্ট্রাক্ট ছারা লোক আসতে দিবেনা একেকটা লোকের কাছ থেকে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা না পাইলে তারা এভাবেই মানুষের জিবনটা শেষ করে দিচ্ছে, আজকে এই লোকটির ৮০ হাজার টাকার টিকেট বরবাদ হল ফ্লাই দুবাই একটি টাকাও ফেরত দিবেনা,

    এগু’লি দেখার দেশে কোনো মন্ত্রি মহাশয়রা নেই, নেই কোনো নেতা, অথচ এই প্রবাসীদের রেমিট্যান্সের জো’রে মন্ত্রী সাহেবরা তাদের সফলতার বড় কৃতিত্ব দেখান,মনে রাখবেন একদিন এর খেশারত আপনারাই দিতে হবে, কোনো ইমিগ্রেশন অফিসার দিবেনা,,,

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *